Total Pageviews

Monday, October 28, 2013

অতিরিক্ত হস্তমৈথুন থেকে বাচার উপায়ঃ

নিয়মিত হস্তমৈথুন শরীরের জন্য ভালো (বি:দ্রঃ ইসলামে হস্তমৈথুন নিষিদ্ধ)। 


তবে এটা খুব বেশি করলে এবং সেই অনুপাতে শরীরের যত্ন না নিলে শারীরিক ও মানসিক ভাবে ক্লান্তি আসতে পারেএটা যাতে নেশায় পরিনত না হয়, সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে যাদের কাছে এটা নেশার মত মনে হয়, এবং মনে প্রাণে কমিয়ে দিতে চাইছেন, তাদের জন্য কিছু ব্যবস্থা করণীয় হতে পারেঃ-

১/ প্রথমেই মনে রাখতে হবে, হস্তমৈথুন বা স্বমেহন প্রাণীদের একটা স্বাভাবিক প্রক্রিয়াএটা করে ফেলে কোন প্রকার অনুশোচনা, পাপ, বা অপরাধবোধে ভুগবেন নামনে রাখবেন আপনি মানুষ আর মানুষ মাত্রই ভুল করেএটা করে ফেলার পর যদি মনে করেন ভুল হয়ে গেছে তো সেজন্য অনুশোচনা করবেন নানিজেকে শাস্তি দেবেন নাবরং দৃঢ় প্রতিজ্ঞ হোন যাতে ভবিষ্যতে মন শক্ত রাখতে পারেন

২/ যেসব ব্যাপার আপনাকে হস্তমৈথুনের দিকে ধাবিত করে, সেগুলো ছুড়ে ফেলুন, সেগুলো থেকে দূরে থাকুনযদি মাত্রাতিরিক্ত হস্তমৈথুন থেকে সত্যি সত্য মুক্তি পেতে চান তাহলে পর্ণ মুভি বা চটির কালেকশন থাকলে সেগুলো এক্ষুনি নষ্ট করে ফেলুনপুড়িয়ে বা ছিড়ে ফেলুনহার্ডড্রাইব বা মেমরি থেকে এক্ষুনি ডিলিট করে দিনইন্টারনেট ব্যবহারের আগে ব্রাউজারে প্যারেন্টাল কন্ট্রোল-এ গিয়ে এডাল্ট কন্টেন্ট ব্লক করে দিনকোন সেক্স টয় থাকলে এক্ষুনি গার্বেজ করে দিন

৩/ কোন কোন সময় হস্তমৈথুন বেশি করেন, সেই সময়গুলো চিহ্নিত করুনবাথরুম বা ঘুমাতে যাওয়ার আগে যদি উত্তেজিত থাকেন, বা হঠাত কোন সময়ে যদি এমন ইচ্ছে হয়, তাহলে সাথে সাথে কোন শারীরিক পরিশ্রমের কাজে লাগে যানযেমন বুকডন বা অন্য কোন ব্যায়াম করতে পারেনযতক্ষণ না শরীর ক্লান্ত হয়ে যায়, অর্থাৎ হস্তমৈথুন করার মত আর শক্তি না থাকে, ততক্ষণ পর্যন্ত সেই কাজ বা ব্যায়াম করুনগোসল করার সময় এমন ইচ্ছে জাগলে শুধু ঠাণ্ডা পানি ব্যবহার করুন এবং দ্রুত গোসল ছেড়ে বাথরুম থেকে বের হয়ে আসুন

৪/অলস মস্তিষ্ক শয়তানের কারখানা সব সময় কোন না কোন কাজে ব্যস্ত থাকুনআগে থেকে সারাদিনের শিডিউল ঠিক করে রাখুনতারপর একের পর এক কাজ করে যানহস্তমৈথুনের চিন্তা মাথায় আসবে না। যারা একা একা সময় বেশি কাটায়, যাদের বন্ধুবান্ধব কম, দেখা গেছে তারাই ঘনঘন হস্তমৈথুন বেশি করে। একা একা না থেকে বন্ধুবান্ধবদের সাথে সময় কাটান একা একা টিভি না দেখে বন্ধুদের সাথে কিছু করুনবন্ধুবান্ধব না থাকলে ঘরে বসে না থেকে পাবলিক প্লেসে বেশি সময় কাটান

৫/ বসে না থেকে সময়টা কাজে লাগানজীবনকে সৃষ্টিশীল কর্মকাণ্ড দিয়ে ভরিয়ে তুলুনসব সময় নতুন কিছু করার দিকে ঝোঁক থাকলে হস্তমৈথুনের ব্যাপারটা মাথা থেকে দূর হয়ে যাবে এই সাথে আরো সব বাজে জিনিসগুলোও জীবন থেকে হারিয়ে যাবেনতুন ভাবে জীবনকে উপলব্ধি করতে পারবেন, বেঁচে থাকার নতুন মানে খুঁজে পাবেনসৃষ্টিশীল কাজে জড়িয়ে পড়ুনলেখালেখি করতে পারেন, গান-বাজনা শিখতে পারেন, আঁকাআঁকি করতে পারেন, অথবা আপনি যা পারেন সেটাই করবেননিয়মিত খেলাধূলা করুনব্যায়াম করুনএতে মনে শৃঙ্খলাবোধের সৃষ্টি হবেনিয়মিত হাঁটতে পারেন, দৌড়াতে পারেন, সাঁতার কাটতে পারেন, জিমে গিয়া ব্যায়াম করতে পারেনবিকেলে ফুটবল, ক্রিকেট- যা ইচ্ছে, কিছু একটা করুনঅফুরন্ত সময় থাকলে সামাজিক কর্মকাণ্ডে জড়িয়ে পড়ুনদেশ ও দশের জন্য সেবামূলক কাজে জড়িত হোন

৬/ ধৈর্য ধরতে হবেএকদিনের একটা নেশা থেকে মুক্ত পাবেন, এমন হবে নাএকাগ্রতা থাকলে ধীরে ধীরে যে কোন নেশা থেকেই বের হয়ে আসা যায়মাঝে মাঝে ভুল হয়ে যাবে তখন হতাশ হয়ে সব ছেড়ে দেবেন নাভুল থেকে শিক্ষা নিয়ে আবার আগাতে হবে

৭/ অপরের সাহায্য নিতে ভুল করবেন নারাতের বেলা হস্তমৈথুন করলে কারো সাথে রুম শেয়ার করুনবা দরজা জানালা খোলা রেখে আলো জ্বালিয়ে ঘুমানযখন দেখবেন যে সব চেষ্টা করেও একা একা সফল হতে পারছেন না, তখন বন্ধুবান্ধব, পরিবার, ডাক্তার- এদের সাহায্য নেয়া যায়এখানে লজ্জার কিছু নাই

কিছু অব্যার্থ টিপসঃ
১/ কম্পিউটারে পর্ণ ব্লকিং সফটওয়ার ইনস্টল করে নিনআজব একটা পাসওয়ার্ড দিয়ে রাখেন যাতে পরে ভুল যানঅথবা কোন বন্ধুকে দিয়ে পাসওয়ার্ড দিননিজে মনে রাখবেন না
২/ কম্পিউটারে পর্ণ দেখতে দেখতে হস্তমৈথুন করলে কম্পিউটার লিভিং রুমে নিয়ে নিন যাতে অন্যরাও দেখতে পায় আপনি কী করছেনএতে পর্ণ সাইটে ঢোকার ইচ্ছে কমে যাবে
৩/ হস্তমৈথুন একেবারেই ছেড়ে দিতে হবে নানিজেকে বোঝাবেন যে মাঝে মাঝে করবেনঘনঘন নয়
৪/ যারা বাজে বিষয় নিয়ে বা মেয়েদের নিয়ে বা পর্ণ মুভি বা চটি নিয়ে বেশি আলোচনা করে, তাদেরকে এড়িয়ে চলুন
৫/ যখন দেখবেন খুব বেশি হস্তমৈথুন করতে ইচ্ছে হচ্ছে এবং নিজেকে সামলাতে পারছেন না, বাইরে বের হয়ে জোরে জোরে হাঁটুন বা জগিং করুন
৬/ ভিডিও গেম খেলতে পারেনএটাও হস্তমৈথুনের কথা ভুলিয়ে দেবে
৭/ হস্তমৈথুনে চরম ভাবে এডিক্টেড হলে কখনোই একা থাকবেন না, ঘরে সময় কম কাটাবেন, বাইরে বেশি সময় কাটাবেনজগিং করতে পারেন, সাইকেল নিয়ে ঘুরে আসতে পারেনছাত্র হলে ক্লাসমেটদের সাথে একসাথে পড়াশুনা করতে পারেনলাইব্রেরি বা কফি শপে গিয়ে সময় কাটাতে পারেন
৮/ সেক্সুয়াল ব্যাপারগুলো একেবারেই এড়িয়ে চলবেনএধরনের কোন শব্দ বা মন্তব্য শুনবেন না
৯/ ছোট ছোট টার্গেট সেট করুনধরুন প্রথম টার্গেট টানা দুইদিন হস্তমৈথুন করবেন নাদুইদিন না করে পারলে ধীরে ধীরে সময় বাড়াবেন
১০/ বাথরুম শাওয়ার নেয়ার সময় হস্তমৈথুনের অভ্যাস থাকলে দরজা খোলা রেখে তোয়ালে জড়িয়ে গোসল করুন, এবং যত তাড়াতাড়ি সম্ভব বাথরুম থেকে বের হয়ে আসতে চেষ্টা করুন
১১/ যখনি মনে সেক্সুয়াল চিন্তার উদয় হবে, তখনই অন্য কিছু নিয়ে চিন্তা করবেন
১২/ মেয়েদের দিকে কুনজরে তাকাবেন নাতাদের ব্যাপারে বা দেখলে মন আর দৃষ্টি পবিত্র করে তাকাবেননিজের মা বা বোন মনে করবেন
১৩/ ধ্যান বা মেডিটেশন করতে পারেনযোগ ব্যায়াম করতে পারেন
১৪/ কোনদিন করেন নাই, এমন নতুন কিছু করার চেষ্টা করুন
১৫/ কাওকে মন থেকে ভালবাসুন... দেখবেন নিজের প্রতি কন্ট্রল আসবে।

আপনাদের সুখী জীবনই আমাদের কাম্য
Share:

0 comments:

Post a Comment

Follow by Email

স্বাস্থ্য কথা. Powered by Blogger.

Blog Archive