Total Pageviews

Friday, December 20, 2013

আনারসের উপকারিতা !

আনারস বর্ষাকালীন ফল হলেও এখন প্রায় সারা বছরই পাওয়া যায়। কাঁচা আনারস স্বাদে অম্ল। পাকা আনারসে রয়েছে অম্ল মধুর রস, সুমিষ্ট গন্ধ ও স্বাদ এবং পুষ্টিকর দিক দিয়ে পাকা আনারস অতুলনীয়।


সারাবিশ্বে জনপ্রিয় ফলগুলোর একটি আনারস। ফলটি মিষ্টি, রসালো ও তৃপ্তিকর। সবচেয়ে বড়কথা পুষ্টিগুণে ভরা এ ফলটি। 

এ ফলটিতে প্রচুর পরিমাণ ভিটামিন এ, সি, ক্যালসিয়াম, ফসফরাস এবং পটাশিয়াম রয়েছে। এ ছাড়া এ ফলটিতে প্রচুর পরিমাণ আঁশ ও ক্যালোরি রয়েছে। এটি কলস্টেরল ও চর্বিমুক্ত। তাই স্বাস্থ্য সুরক্ষায় এ ফলের জুড়ি নেই। 

আমাদের দেশে সাধারণ সর্দি-কাশিতে আনারস খাওয়ার পরামর্শ দেন না এমন লোক খুব কমই আছেন। বর্ষাকালেই সাধারণত ইনফ্লুয়েঞ্জা জ্বর বেশি হয় এবং শুরুতেই আনারসের রস খেলে দ্রুত নিরাময় করা সম্ভব হয়। 

আনারসে ব্রোমোলিম নামক এক ধরনের রাসায়নিক পদার্থ থাকায় তা কফ বা মিউকাসকে তরল করে এবং হজমে সহায়তা করে। 

গলাব্যথা, সোর থ্রোট, নাক দিয়ে পানি পড়া এবং ব্রংকাইটিসে আনারসের রস ওষুধের বিকল্প হিসাবে কাজ করে।

আনারসের পাতার রস ক্রিমিনাশক। দু' চামচ করে প্রতিদিন পাতার রস খেলে কয়েকদিনের মধ্যেই কৃমির উৎপাত বন্ধ হয়ে যায়। কৃমি দূর করার জন্য খালি পেটে (সকালবেলা ঘুম থেকে উঠে) আনারস খাওয়া উচিত। 

গবেষণায় দেখা গেছে, আনারসে রয়েছে এক প্রকার এনজাইম যা প্রদাহনাশক ও মিউকোলহিটিক হিসাবে কাজ করে। বদহজম বা পেট ফাঁপা সমস্যায় আনারসের রসের সাথে সামান্য লবণ ও গোলমরিচ গুঁড়া মিশিয়ে খেলে আরোগ্য হয়।

আনারসে রয়েছে প্রচুর পরিমাণ ভিটামি সি, যা ভাইরাস প্রতিরোধ করে এবং গলা থেকে কফ দূর করে। ঠাণ্ডা ইনফেকশন হয়ে নিউমোনিয়ায় আক্রান্ত হলেও আনারস খেলে বেশ উপকার পাওয়া যাবে। 

আনারসে থাকা খনিজ পদার্থ হাড়কে মজবুত করে। এক কাপ আনারসের রসে পুরো শরীরের খনিজ পদার্থের ৭৩ শতাংশ পর্যন্ত পূরণ করতে পারে। দাঁতের মাঢ়ি নিয়ে যারা দুশ্চিন্তগ্রস্ত তারা নিয়মিত আনারস খেলে দাঁতের মাঢ়ি সুস্থ ও মজবুত হয়। গরম-ঠাণ্ডার জ্বর, জ্বরজ্বর ভাব দূর করে এই ফল। 

এতে রয়েছে ব্যথা দূরকারী উপাদান। তাই শরীরের ব্যথা দূর করার জন্য এর অবদান গুরুত্বপূর্ণ।

এ ছাড়া এই ফলটি দেহে রক্ত জমাট বাঁধতে বাধা দেয়। ফলে শিরা-ধমনির (রক্তবাহী নালি) দেয়ালে রক্ত না জমার জন্য সারা শরীরে সঠিকভাবে রক্ত যেতে পারে। হৃৎপিণ্ড আমাদের শরীরে অক্সিজেনযুক্ত রক্ত সরবরাহ করে। আনারস রক্ত পরিষ্কার করে হৃৎপিণ্ডকে কাজ করতে সাহায্য করে এবং দেহের তৈলাক্ত ত্বক, ব্রণসহ সব রূপলাবণ্যে আনারসের যথেষ্ট কদর রয়েছে। 

আপনাদের সুখী জীবনই আমাদের কাম্য। ধন্যবাদ।
Share:

0 comments:

Post a Comment

Follow by Email

স্বাস্থ্য কথা. Powered by Blogger.

Blog Archive