Total Pageviews

Tuesday, June 24, 2014

তামার পাত্রে পানি পানের সুফল!

তামার পাত্র নামটি এখন প্রায় গল্পের মতো শোনায়। আমরা অনেকেই দাদা-নানার কাছে গল্প শুনেছি তামা- কাশার ব্যবহারের কথাএখনও অনেকেরই বাসায় antique হিসেবে এগুলো রাখা হয়


এখন এগুলোর ব্যবহার নাইবললেই চলে, তবে আগে এমন একটা সময় ছিল যখন বিয়ে, মুসলমানি, জন্মদিনের মতো বিভিন্ন অনুষ্টানে বেশীরভাগ সময় তামার তৈরী মগ, থালা, কলসি ইত্যাদি উপহার হিসেবে ব্যবহৃত হতো  বর্তমানে এগুলোর ব্যবহার না থাকলেও এই ধরনের পাত্রে পানি পান করার রয়েছে কিছু স্বাস্থ্য সম্মত উপকারিতা

তামার পাত্রে রাখা পানির অনেক গুণ।  তামা একটি মিনারেল (খনিজ)তার সমস্ত বৈশিষ্ট দিয়ে পানিকে পুরো মাত্রায় বিশুদ্ধ করে দেয়পানির গুণাগুণ অনেক মাত্রায় বেড়ে যায়তবে এই পানির সুফল পেতে গেলে একটি তামার পাত্রে পানি ধরে রাখতে হবে কম করে আট ঘন্টা

উপকারিতাঃ
ব্যকটেরিয়া দমনে সাহায্য করেঃ
তামা প্রকৃতিতে oligodynamic হিসেবে পরিচিত, এবং খুব কার্যকর ভাবে ব্যাকটেরিয়া ধ্বংস করতে পারেসাধারণ ভাবে আমাদের পরিবেশ পাওয়া যায় এবং মানুষের শরীরে গুরুতর অসুস্থতার কারণ পরিচিত যে দুটি ব্যাকটেরিয়া তা হলো E.coli এবং S.aureus । এই ব্যাকটেরিয়ার বিরুদ্ধে বিশেষ কার্যকর ভূমিকা পালন করেএছাড়াও ডায়রিয়া, আমাশায় এবং জন্ডিসের মত সাধারণ পানি বাহিত রোগ প্রতিরোধ করতে সাহায্য করে

মস্তিস্কের উদ্দীপকের কাজ করেঃ
আমাদের মস্তিষ্কের synapses নামে পরিচিত একটি এলাকা যা এক মাধ্যমে থেকে অন্য এক মাধ্যমে স্নায়ুর impulses প্রেরণে কাজ করেতামা মাইলিন sheaths গঠনের জন্য অপরিহার্য ফসফোলিপিড সংশ্লেষণ সহায়তা করে, যার ফলে, আরো দক্ষতার সঙ্গে মস্তিষ্ক কাজ অনেক দ্রুত করে

ত্বকের স্বাস্থ্য এবং মেলানিন গঠনেঃ
ত্বকের জন্য এবং মেলানিনের উৎপাদনের প্রধান উপাদান হলো তামাতামার পাত্রে পানি পান করলে এটি মেলানিনের গঠনে সাহায্য করে

হজমের উন্নতি করে:
তামায় ক্ষতিকারক ব্যকটেরিয়া দমনের জন্য peristalsis নামক উদ্দিপক রয়েছে যা পেটের প্রদাহ এবং আলসার সহ পেঠের বিভিন্ন ধরনের অসুখের বিরুদ্ধে ভালো কাজ করে

[আপনাদের সুখী জীবন আমাদের কাম্য ধন্যবাদ।]


Share:

0 comments:

Post a Comment

Follow by Email

স্বাস্থ্য কথা. Powered by Blogger.

Blog Archive