Total Pageviews

Monday, October 13, 2014

ঘুমানোর আগে যে কাজগুলো চিরকাল আপনার সুস্বাস্থ্য বজায় রাখবে!

ঘুম হচ্ছে মানুষের শরীর নামক যন্ত্রটাকে বিশ্রাম দেয়া। পরবর্তী দিনের কর্মের জন্য প্রস্তুত করা। রাতের ভালো ঘুম নিশ্চিত করে আপনার পরের দিনটা কেমন যাবে। ঘুমাতে যাওয়ার আগে কয়েকটি জিনিস একটু সচেতনতার সাথে খেয়াল করে নিয়মিত অভ্যাস তৈরি করে ফেলতে পারলে আপনি ডাক্তার আর ঔষধের পয়সা বাঁচিয়ে ঘুরে আসতে পারবেন প্রিয় কোন স্থান থেকে। অপর দিকে আপনার শরীরটাও থাকলো সুস্থ।


••►তাহলে একটু দেখে নিন ঘুমাতে যাওয়ার আগে এই ৫ টি কাজ আপনি করেছেন কিনা?

রাতের খাবার খাওয়ার পর ১০ মিনিট হাঁটুনঃ ঘুমাতে যাওয়ার কম পক্ষে দুই ঘন্টা আগে রাতের খাবার খেয়ে নিবেন। খাওয়ার পর ঘুমাতে যাওয়ার আগে অবশ্যই ১০ মিনিট হাঁটবেন। এতে খাদ্য পরিপাক ভালো হবে। সামান্য পরিশ্রমের জন্য ঘুমও হবে। দেহে মেদ জমবে না।

মুখের ত্বক ধুয়ে নেয়াঃ সম্ভব হলে কাঁচা হলুদ বাটার সাথে নিম পাতার মিশ্রণ মিশিয়ে মুখে লাগিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এত মুখের ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়বে। জীবাণুর সংক্রমন থেকে রক্ষা পাবে আপনার ত্বক। আর ব্রন হবে না।

ইসবগুল মেশানো এক গ্লাস শীতল পানি পান করুনঃ ঘুমাতে যাওয়ার কম পক্ষে আধাঘন্টা আগে ইসবগুল মেশানো এক গ্লাস শীতল পানি পান করুন। এটি আপনার খাদ্য পরিপাক ক্রিয়াকে সচল রাখবে। ঘরের তাপমাত্রা শরীরের তাপমাত্রার সাথে ব্যালান্স করতে সহায়তা করবে। আর সবচেয়ে সুফল পাবেন সকালে। কোষ্ঠকাঠিন্য দূর হয়ে যাবে।

চুল আঁচড়ে নিনঃ ঘুমাতে যাওয়ার আগে বড় দাঁতের চিরুনী ভিজিয়ে নিয়ে চুল আঁচড়ে নিন। এতে মাথার ত্বকের রক্ত সঞ্চালন বাড়বে। আর চুল গুছানো থাকবে। লম্বা চুল হলে চুলে জট বাঁধবে না।

দাঁত ব্রাশ করে নিন ভালো মতোঃ রাতে সাধারণত ব্যাকটেরিয়া সুযোগ পেয়ে যায় আপনার দাঁতের বারোটা বাজাতে। তাই অবশ্যই ঘুমাতে যাওয়ার আগে দাঁত ব্রাশ করে নিবেন। আর যেটা করবেন, একটা লবঙ্গ কামড়ে কুলকুচি করে নিতে পারেন। এতে হবে কি, লবঙ্গ ভালো এন্টিস্যাপটিক, আপনার মুখের জীবাণু দূর করবে আর নিঃশ্বাসের দুর্গন্ধও দূর হবে।

‘প্রিয়’ পাঠক। সামান্য স্বাস্থ্য সচেতন হয়ে সুশৃঙ্খল জীবন যাপন করলেই কিন্তু সুস্থ থাকা যায়। সুস্থ থাকুন প্রতিক্ষণ। আপনার সুস্বাস্থ্য কামনা করি।

[আপনাদের সুখী জীবন আমাদের কাম্য। ধন্যবাদ।]
Share:

1 comment:

Follow by Email

স্বাস্থ্য কথা. Powered by Blogger.