Total Pageviews

Monday, December 29, 2014

থানকুনির পাতার গুণাগুণ!

থানকুনির পাতার রয়েছে বগু গুণাগুণ। সামান্য পাতা থেকে এতো উপকার পাওয়া যায় তা আমরা কখনও ভাবতেও পারিনি। আজ থানকুনির পাতার উপকার সম্পর্কে জেনে নিন।



থানকুনির পাতা আমাদের বহুবিধ উপকার করে থাকে। থানকুনির পাতা সবচেয়ে বেশি ব্যবহার হয়ে থাকে পেটের অসুখে। হজমে গোলমাল, আমাশয় ইত্যাদি সমস্যায় গ্রামের মানুষ থানকুনির পাতা ভর্তা করে বেটে ভাতের সঙ্গে খেয়ে থাকে। থানকুনির পাতার ঝোল রান্না করে ভাতের সঙ্গেও খাওয়া যায়। শহরের মানুষও এই থানকুনির পাতা ব্যবহার করতে পারেন। কারণ এটি বাজারে হর-হামেশায় কিনতে পাওয়া যায়।

থানকুনির পাতায় কি কি উপকার হয়: 

✬ থানকুনির পাতার ঝোল খুবই পুষ্টিকর একটি খাদ্য।
✬ ভেষজ চিকিৎসকরা বহুবিধ রোগের চিকিৎসায় থানকুনির পাতাকে ব্যবহার করে থাকেন।
✬ থানকুনি লতার রস শারীরিক দুর্বলতা কাটাতে সাহায্য করে।
✬ থানকুনির পাতা স্নায়ুতন্ত্রকে তীক্ষ্ম করে তোলে।
✬ গুরুতর রোগের দীর্ঘদিন সয্যাশায়ী থাকলে চিকিৎসকরা থানকুনির পাতার ভর্তা কিংসা রস পথ্য হিসেবে দিয়ে থাকে।
✬ বাত কিংবা হাতের কব্জি কিংবা পায়ের গোড়ালিতে ব্যথা হলে থানকুনির পাতা বেটে মালিশ করা যায়।
✬ শিশুদের অল্প করে থানকুনির পাতার রস নিয়মিত খাওয়ালে কৌষ্টিকতন্ত্র শক্তিশালি হয়।

তাই থানকুনির পাতাকে ছোট করে না দেখে আপনার ছোটখাট অসুখে ব্যবহার করুন। কারণ এসব ভেষজ ওষুধ পার্শ্ব্রপ্রতিক্রিয়াহীন।


[ আপনাদের সুখী জীবনই আমাদের কাম্য, ধন্যবাদ ]
Share:

0 comments:

Post a Comment

Follow by Email

স্বাস্থ্য কথা. Powered by Blogger.