Wednesday, January 16, 2019

বৈদ্যুতিক শক!

মাঝে মধ্যে বাড়ির ছোটখাট বৈদ্যুতিক কাজ নিজেকে করতে হয়৷ বিদ্যুতের কাজ করতে গিয়ে কখনো কখনো অসতর্কতাবশত কোনো দুর্ঘটনা হয়ে যেতে পারে৷


কেউ বিদ্যুস্পৃষ্ট হলে করণীয়ঃ
এমন বৈদ্যুতিক শকের ঘটনা যদি হঠাৎ ঘটে যায় তাহলে এ সময় ঘাবড়ে না গিয়ে মাথা ঠাণ্ডা রাখতে হবে।


এ সময় উপস্থিত বুদ্ধি দিয়ে সেই দুর্ঘটনাকবলিত ব্যক্তিকে আপনি রক্ষা করতে পারেন।

✬ বৈদ্যুতিকস্পৃষ্ট ব্যক্তির গায়ে হাত দেওয়া যাবে না।
✬ বৈদ্যুতিকসুইচ সঙ্গে সঙ্গে বন্ধ করে দিতে হবে৷


✬ সুইচ বন্ধ করা সম্ভব না হলেশুকনো খবরের কাগজউলের কাপড়শুকনো কাঠের টুকরা অথবা রাবার দিয়ে বৈদ্যুতিক্‌স্পৃষ্ট ব্যক্তিকে বৈদ্যুতিক তার থেকে ধাক্কা দিয়ে আলাদা করতে হবে৷
✬ ধাক্কা দেওয়া এবং সুইচ বন্ধ করা সম্ভব না হলে দ্রুত বৈদ্যুতিক অফিসে খবর দিতে হবে৷
✬ বৈদ্যুতিক্‌স্পৃষ্ট ব্যক্তির শ্বাস বন্ধ হয়ে গেলে কৃত্রিম শ্বাস দেওয়ার ব্যবস্থা করতে হবে যতক্ষণ না তাকে হাসপাতালে নেওয়া সম্ভব হয়৷ দ্রুত তাকে হাসপাতালে নেওয়ার ব্যবস্থা করতে হবে৷
✬ বৈদ্যুতিকস্পৃষ্ট ব্যক্তিকে বিদ্যুতের উৎস থেকে সরাতে পারলে সঙ্গে সঙ্গে আক্রান্ত ব্যক্তিকে গরম দুধ ও গরম পানি খাওয়াতে হবে। এতে শরীরের রক্ত সঞ্চালন দ্রুত স্বাভাবিক হবে।
✬ বৈদ্যুতিকস্পৃষ্ট ব্যক্তির হৃদপিণ্ড যদি বন্ধ হয়ে যায় তবে তার বুকের ওপর জোরে জোরে চাপ দিতে হবে৷
✬ বৈদ্যুতিকস্পৃষ্ট ব্যক্তির গলা, বুক ও কোমরের কাপড় ঢিলা করে দিতে হবে।
✬ বৈদ্যুতিকস্পৃষ্ট ব্যক্তির শ্বাস প্রশ্বাস স্বাভাবিক থাকলেও তাকে অন্তত এক ঘণ্টা চুপ করে শুয়ে বিশ্রাম নিতে হবে৷ 

রোগির বিদ্যুতায়িত হওয়ার পরিমাণের ওপর নির্ভর করে সিদ্ধান্ত নিতে হবে। অবস্থা বেশি খারাপ হলে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই হাসপাতালে নিতে হবে। এভাবে বৈদ্যুতিক শক খাওয়া ব্যক্তিকে সুস্থ্ করে তোলা সম্ভব।


সতর্কতাঃ

✬ ভেজা শরীরে বা হাতে বৈদ্যুতিক যন্ত্রপাতি ধরা যাবে না৷
✬ ভেজা জায়গায় দাঁড়িয়ে  বিদ্যুতের কাজ করা যাবে না৷
✬ বৈদ্যুতিক কাজ করার সময় অবশ্যই রাবারের জুতা পরে নিতে হবে৷
✬ প্রয়োজনে বৈদ্যুতিক মেইন সুইচ বন্ধ করে কাজ করতে হবে৷
✬ খোলা তার এড়িয়ে চলুন, বর্ষায় জল জমে থাকা রাস্তার ভেতরে খালি পায়ে বা রাবার, স্পঞ্জ ভিন্ন অন্য উপাদানের জুতো পরে হাঁটাচলা করবেন না।
✬ বাড়ির সব ক’টি বৈদ্যুতিক তার ও আর্থিং ঠিক আছে কিনা খতিয়ে দেখে নিন।

[আপনাদের সুখী জীবন আমাদের কাম্য। ধন্যবাদ।]

0 comments:

Post a Comment